আলহামদুলিল্লাহ্‌, ইতমধ্যে কোর্সে ৮০০ +  ৮০০ +  ৮০০ +  শিক্ষার্থী জয়েন করেছেন

অন্যের পিছনে না দৌড়িয়ে সবচেয়ে কম সময়ে এবং সহজ উপায়ে নিজেই ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন ও ফেসবুকে সেলস অ্যাড ক্যাম্পেইন রান করা শিখুন

ডোমেইন হোস্টিং কেনা, ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন, ল্যান্ডিং পেজের কন্টেন্ট রাইটিং, ফেসবুক পিক্সেল সেটাপ, ফেসবুকে সেলস অ্যাড রান করা ইত্যাদি সব কিছু শিখুন এক কোর্সে। এখন কোর্সে জয়েন না করলে, পরবর্তীতে এসে এই অফার নাও পেতে পারেন।

এক ক্লিকে ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন করার সিক্রেট জানুন এবং নিজেই নিজের বিজনেসের জন্য ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন করে ফেলুন মুহূর্তের মধ্যে...........
Within Next 7 Days From Today

নিজেই কেন ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন শিখবেন?

অন্যকে দিয়ে ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন করিয়ে নিলে পরবর্তীতে টুকটাক ইডিটিং এর জন্যও তার উপর নির্ভরশীল থাকতে হয়, নিজে শিখে নিলে আর ভয় নাই

ডেভেলপারকে দিয়ে ল্যান্ডিং পেজ তৈরি করতে গেলে প্রতিবারই আপনাকে টাকা খরচ করতে হবে, সো নিজে শিখলে লাইফ টাইম টাকা সেভ করতে পারছেন

সমস্যায় পড়লে আমাদের কাছ থেকে দ্রুত সাপোর্ট নিতে পারছেন, সো সাপোর্টিভ একটা কমিউনিটিতে যুক্ত হতে পারছেন

ম্যাসেজ অ্যাড চালিয়ে ইনবক্সে কাস্টমারের সাথে বার বার চ্যাটিং করে বিরক্ত হওয়া লাগবে না , ঘুমিয়ে থাকলেও অর্ডার আসবে

আপনার মত আরো অনেক অনলাইন উদ্যোক্তার সাথে নেটওয়ার্কিং করার সুযোগ পাচ্ছেন

ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন, পিক্সেল সেটাপ, কনভার্সন অ্যাড রান করার জন্য অন্যের পিছনে দৌড়াতে হবে না

ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন আপনাকে একজন ওয়েব ডেভেলপার এর কাছ থেকেই শিখতে হবে যাতে সমস্যায় পড়লে দ্রুত সাপোর্ট পান একজন নন এক্সপার্ট এর কাছে গিয়ে আপনার মূল্যবান সময় ও অর্থ অপচয় করবেন না........

আমি মোঃ আরিফুল ইসলাম, একজন প্রফেশনাল ওয়েব ডেভেলপার এবং একজন অনলাইন উদ্যোক্তা। আমি নিজেই যেহেতু একজন অনলাইন উদ্যোক্তা, নিজে বিজনেস করার পাশাপাশি আপনার মত অনেক অনলাইন উদ্যোক্তাকে বিজনেসে হেল্প করতেছি সুতরাং আমি জানি কিভাবে একজন নতুন উদ্যোক্তাকে গাইড করে স্কিল ডেভেলপ করাতে হয়, যেটি তার বিজনেসের গ্রোথে হেল্প করে।

 

আমি গত ১ বছরে ৫০০ + অনলাইন উদ্যোক্তাকে এই ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইনের উপর সফলভাবে প্রশিক্ষণ দিয়েছি। আমাদের দেশের অধিকাংশ অনলাইন উদ্যোক্তা ননটেক পার্সন ( কম্পিউটার ও অনলাইন জগতে খুব বেশি এক্সপার্ট না) তাদেরকে শেখানোর মেথড আর একজন টেক পার্সনকে শেখানোর মেথড কখনো এক হবে না। অনলাইন উদ্যোক্তাকে সবচেয়ে সহজভাবে , টু দ্যা পয়েন্ট এ গিয়ে, সবচেয়ে কম সময়ের মধ্যে ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন শেখানোর প্রুভেন ও সিক্রেট মেথড বাংলাদেশে সর্বপ্রথম আমি-ই  বের করেছি, আলহামদুলিল্লাহ্‌।

 

স্পেসিফিক ভাবে অনলাইন উদ্যোক্তাদেরকে ল্যান্ডিং পেজ ডিজাইন শেখানোর জন্য এ রকম গোছানো কোর্স বাংলাদেশে অন্য কোথাও পাবেন না।

৩০০০ টাকা মূল্যের ১ টি রেডিমেড টেমপ্লেট ফ্রি

কোর্সে এনরোল করলেই পাবেন ৩০০০ টাকা মূল্যের একটি রেডিমেড ল্যান্ডিং পেজ টেমপ্লেট একদম ফ্রি। যেটা ব্যবহার করে এক ক্লিকে ল্যান্ডিং পেজ তৈরি করে ফেলতে পারবেন, আপনাকে কষ্ট করে স্ক্রাচ থেকে ডিজাইন করতে হবে না

কি কি শিখতে পারবেন এই কোর্স থেকে?

দেখুন, শিখবেন অনেক কিছু ইনশাআল্লাহ্ । সংক্ষেপে কিছু তুলে ধরছি।

এক নজরে দেখে নিন, আমাদের শিক্ষার্থীরা আমাদের সম্পর্কে কি বলেঃ

কোর্সটি রেকর্ডেড ভিডিও টিউটোরিয়াল কোর্স। আপনি কোর্সে জয়েন করার পর আপনার ইমেইলে একটা লগইন ডিটেইলস পাঠানো হবে। সেই লগইন ডিটেইলস দিয়ে আমাদের ওয়েবসাইটে লগইন করলে, আপনি ভিডিও দেখতে পারবেন। 

বিঃ দ্রঃ আপনি কেবল যেকোন একটা ডিভাইসে লগইন করতে পারবেন, মাল্টিপল ডিভাইসে লগইন করতে পারবেন না এবং সেটা অবশ্যই আপনার কম্পিউটার থেকে করতে হবে। প্লিজ, মোবাইল দিয়ে লগইন করবেন না (কারণ ছোট স্ক্রীনে ভালো বুঝতে পারবেন না, ভিডিও বাফারিং হবে)।

সাপোর্টের জন্য ফেসবুকে প্রাইভেট সাপোর্ট গ্রুপ রয়েছে। সমস্যায় পড়লে সেখানে বিস্তারিত লিখে বা ভিডিও রেকর্ড করে পোস্ট করবেন, আমাদের সাপোর্ট টিম আপনাকে যত দ্রুত সম্ভব সাপোর্ট দেয়ার চেষ্টা করবে। প্রয়োজনে কল করবে, আপনাকে টিমভিউয়ারে/ এনিডেস্কে এসে লাইভ সাপোর্ট দিবে, ইনশাআল্লাহ্‌।

লাইভ সাপোর্ট এর টাইমঃ সকাল ১০ টা – সন্ধ্যা ৬ টা।

বিঃ দ্রঃ ফোন কলে, ম্যাসেঞ্জারে বা হোয়্যাটসআপ এ কোন সাপোর্ট দেয়া হয় না। যেহেতু সাপোর্ট টাইম এর সময় (সকাল ১০ টা – সন্ধ্যা ৬ টা) উপরে বলা হইছে, সুতরাং, ঐ টাইমের মধ্যেই যথা সম্ভব দ্রুত সাপোর্ট দেয়ার চেষ্টা করি। অন্য টাইমে সাপোর্ট ধীরগতি হবে, এটাই স্বাভাবিক। আমরাও মানুষ, আমাদেরও পরিবার, কাজ ইত্যাদি রয়েছে সো সবসময় যে ইনস্টান্ট সাপোর্ট পাবেন, এটার নিশ্চয়তা আমরা দিতে পারিনা।

আপনি যে প্যাকেজে ইনরোল করবেন , সেই প্যাকেজের নির্ধারিত সময় পর্যন্ত ঐ কোর্সের ভিডিও অ্যাক্সেস ও সাপোর্ট গ্রুপের অ্যাক্সেস পাবেন। চেক আউট ফর্মের উপরে প্যাকেজ সম্পর্কে বিস্তারিত পেয়ে যাবেন।

কোর্সটি থেকে তারাই সব থেকে বেশি লাভবান হতে পারবেন, যারা অনলাইনে ইতমধ্যে বিজনেস করছেন, ফেসবুকে টুকটাক অ্যাড রান করেছেন।

যে কখনো অনলাইনে বিজনেসই করেন নাই, সে এখান থেকে চাইলে কোর্সের বিষয়গুলো জানতে ও শিখতে পারবেন কিন্তু কাজে লাগাতে পারবেন কিনা, সেটা আপনার উপর নির্ভর করছে।

স্কুলে ভর্তি হলেই যেমন জিপিএ ৫ পেয়ে যাবেন না কিংবা  স্কুল জীবন শেষ করলেই চাকরি পেয়ে যাবেন না। সুতরাং, কোর্সে জয়েন করলেই প্রোডাক্টের সেল বেড়ে যাবে, এটা চিন্তা করা বোকামি। আপনাকে কোর্সটি আয়ত্ত করতে হবে, ল্যান্ডিং পেজের কন্টেন্ট ভালো হতে হবে, অ্যাড কপি ভালো হতে হবে, আপনার প্ল্যান ঠিক আছে কিনা ইত্যাদি আরো অনেক বিষয় রয়েছে, সেগুলো ঠিক না থাকলে প্রোডাক্টের সেল বাড়বে কিভাবে, বলুন।

জয়েন করার পূর্বে অবশ্যই পড়ে নিবেন: ক্লিক করুন

© 2023 – Abc IT Park. All Rights Reserved.